Breaking News

নির্জন কনডেম সেলে পাচঁ জনের সঙ্গে থাকছেন সেই মিন্নি

বরগুনার বহুল আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যা মামলার ঘোষিত রায়ে ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত রিফাতের স্ত্রী আয়শা সিদ্দিকা মিন্নির দিনরাত কাটছে এখন কারাগারে। গেল বুধবার বরগুনার জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. আছাদুজ্জামানের আদালত মামলার প্রাপ্তবয়স্ক ১০ আসামির মধ্যে ৬ জনের ফাঁসি ও ৪ জনকে খালাস দিয়ে রায় ঘোষণা করেন।

বিকাশ অ্যাপ ইন্সটল করলেই পাবেন  ১০০ টাকা বোনাস!  Bkash App Download Link

ওইদিনই মিন্নিকে গ্রেফতার দেখিয়ে কারাগারে নেওয়া হয়। কনডেমড সেলে প্রথম রাত কাটানোর পর গতকাল বৃহস্পতিবার কনডেম সেল থেকে বাবা-মায়ের সঙ্গে ফোনে কথা বলেন মিন্নি।

এসময় তিনি বেশ কান্নাকাটি করেন। বাবা মোজাম্মেল হোসেন কিশোর জানান, সকাল ১০টার দিকে মেয়ের সঙ্গে তাদের কথা হয়েছে। মিন্নির বাবা বলেন, ‘মিন্নি খুব কান্নাকাটি করছে। মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছে। ষড়যন্ত্র করে আমার মেয়েকে ফাঁসানো হয়েছে। ’

বরগুনা জেলা কারাগারের কনডেমড সেলের একমাত্র নারী আসামি মিন্নি। জেলা কারাগারের জেল সুপার মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, ‘কারাবিধি অনুযায়ী ৬ বন্দিকে কনডেমড সেলে রাখা হয়েছে।

কারাগার থেকে প্রত্যেককে দুই সেট করে পোশাক দেয়া হয়েছে। কনডেমড সেলের বন্দিরা সেল থেকে বের হতে পারেন না। তবে মাসে একবার স্বজনদের সঙ্গে দেখা করতে পারেন। সপ্তাহে একবার নির্দিষ্ট সময় পরিবারের সঙ্গে ফোনে কথা বলতে পারেন। ’

বুধবার ৫ পুরুষ আসামির সঙ্গে কনডেম সেলে রাত কাটানোর পর বৃহস্পতিবার সকালে মিন্নিকে রুটি খেতে দেয়া হয়। দুপুরের খাবারে ছিল ভাত, সবজি ও ডাল। রাতে গরুর মাংস, ভাত ও ডাল।

error: Content is protected !!