Breaking News

মায়ের নির্দেশে ট্রেন থামিয়ে সাজিদ বাঁচল শতশত যাত্রীর প্রা’ণ

জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার খা’সবাগুরী এলাকায় পঞ্চগড় থেকে ঢা’কাগামী দ্রুতযান আন্তঃনগর ট্রেনটি থামিয়ে সা’জিদ হোসেন নামে এক কিশোর বাঁচালো শতশত ট্রে’নযাত্রীর প্রাণ।

আমেরিকান ডিবি লটারিতে আবেদন করতে এখানে ক্লিক করুন

সেই সঙ্গে এক ভ’য়াবহ দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেল কোটি কোটি টাকার মূল্যের ট্রেনটি। রোববার দুপুর ১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

জয়পুরহাট জেলার পাঁচবিবি উপজেলার খাসবাগুরী গ্রামের আনোয়ার হোসেন ও সহিদা বেগমের ছেলে সাজিদ হোসেন, পাঁচবিবি উপজেলার একটি বে’সরকারি স্কুলে দশম শ্রেণিতে লেখাপড়া করছে।

একই গ্রামের রেজাউল করিম, সজিব, মোজাম্মেল হকসহ এ’লাবাসীরা জানান, সাজিদের মা সহিদা বেগম বাড়ির পা’র্শ্ববর্তী রেললাইন পারাপার হচ্ছিলেন।

বিকাশ অ্যাপ ইন্সটল করলেই পাবেন  ১০০ টাকা বোনাস! Bkash App Download Link

এ সময় তিনি একটি রে’ললাইনে ফাটল দেখে সঙ্গে সঙ্গে লাঠিতে লাল গেঞ্জি লাগিয়ে ছেলে সা’জিদকে তা উড়াতে বলেন। পরে সাজিদ লাল গেঞ্জি উড়িয়ে থামিয়ে দেন ঢা’কাগামী আন্তঃনগর দ্রুতযান ট্রেনটিকে।

এতে বড় দু’র্ঘটনার হাত থেকে রক্ষা পেল ট্রেনে থাকা শতশত যাত্রী। এই মহৎ কাজে সা’জিদকে তাৎক্ষণিক অভিনন্দন জানিয়েছেন এ’লাকাবাসীরা। সেই সঙ্গে জ’নগুরুত্বপূর্ণ এই যোগাযোগ ব্যবস্থারও আ’ধুনিকীকরণের দাবি করেন স্থানীয়রা।

সাজিদ হোসেন বলেন, মায়ের নির্দেশে যা’ত্রীদের প্রাণ ও ট্রেন বাঁচাতেই লাল গেঞ্জি নিয়ে রেল লাইনে দাঁ’ড়িয়েছিলাম, ট্রেন আসা দেখে লাঠিতে লাগানো ওই লাল গেঞ্জি উড়ালে যখন ট্রেন থামল, তখন ভীষণ ভয় পে’য়েছিলাম।

আমেরিকান ডিবি লটারিতে আবেদন করতে এখানে ক্লিক করুন

তারপর যখন ট্রেনযাত্রী, ট্রেনচালক ও এ’লাকার অনেক মানুষ এসে খুব শাবাশ দিল, তখন কি যে ভালো লাগল তা আর বলে বুঝাতে পারব না।

সব চেয়ে বড় কথা, দু’র্ঘটনার হাত থেকে শতশত যাত্রীসহ ট্রে’নটিকে রক্ষা করতে পারায় নিজেকে ধন্য মনে করছি। রে’ললাইন মেরামত কর্মচারী হোসেন বলেন, সা’জিদের ট্রেন থামানোর পর অফিস ক’র্মকর্তাদের নির্দেশে ঘটনাস্থলে এসে রেললাইনের ফাটল জোড়া লাগানো হয়েছে।

এতে প্রায় এক ঘণ্টা পর রেল চলাচল স্বা’ভাবিক হয়েছে।

error: Content is protected !!